রাজধানীতে তীব্র পানি সংকট

রাজধানীতে তীব্র পানি সংকট

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত দুই সপ্তাহর বেশি সময় ধরে পানি সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে পশ্চিম ধানমন্ডির মধুবাজার এলাকায়। পুরো এলাকায় চলছে পানির জন্য হাহাকার। এখন ব্যবহারের জন্য ওয়াসার গাড়ি আর খাবারের জন্য বাইরে থেকে কেনা জার অথবা বোতলজাত পানিই তাদের একমাত্র ভরসা। এতে অর্থনৈতিক খরচও বেড়ে গেছে কয়েক গুণ। আর ওয়াসার গাড়ির পানি পাওয়া খুবই দুষ্কর।

রমজান আর লকডাউন মিলে এ এলাকার বাসিন্দারা এখন পানি সংকটে সীমাহীন ভোগান্তিতে রয়েছেন। তার ওপর বেড়েছে গ্রীষ্মের তাপদাহ। শুধু পশ্চিম ধানমন্ডি নয়, এ সংকট মধ্যবাসাবো, মোহাম্মদপুর, লালবাগসহ ঢাকার কয়েকটি এলাকায়।

ঢাকা ওয়াসা কর্তৃপক্ষ বলছে, কেন্দ্রীয়ভাবে পশ্চিম ধানমন্ডির বাংলা রোডে পানির সংকটের তথ্য এসেছে। তা সমাধানের চেষ্টা চলছে। হাতিরঝিলের আমবাগান ও মধুবাগ এলাকায় পানির তীব্র সংকট দুই সপ্তাহ ধরে।

স্থানীয় বাসিন্দা সাজ্জাদ হোসেন জানান, আমবাগান আবাসিক এলাকায় দুই সপ্তাহ ধরে পানির তীব্র সংকট সৃষ্টি হয়েছে। মাঝের দুইদিন পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলেও এখন আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে। মাঝেমাঝে পানি আসে। গত শনিবার থেকে গতকাল বুধবার পর্যন্ত সারাদিনই পানি ছিল না। রাত ১১টায় কিছু পানি পাওয়া গেছে। তা দিয়ে হাত-মুখ ধোয়ার কাজে এলেও খাবার অনুপযোগী। এছাড়া পানিতে ময়লা আর দুর্গন্ধ তো আছেই। আমরা দ্রুত এ সমস্যা সমাধান চাই।

গরমের এই সময়ে রাজধানীর পুরান ঢাকা, রামপুরা, বনশ্রী, মোহাম্মদপুর, মিরপুর, যাত্রাবাড়িসহ অনেক এলাকায় পানির সংকট দেখা দিয়েছে। কোথাও কোথাও দিনে দুয়েকবার পানির দেখা মিললেও তা যৎসামান্য। তা দিয়ে চাহিদা পূরণ হচ্ছে না।

যদিও ওয়াসার দাবি, পানি নিয়ে বড় ধরনের কোনো সংকট নেই। কিছু কিছু এলাকায় কারিগরি সমস্যার কারণে সাময়িক পানির সংকট সৃষ্টি হতে পারে। তবে অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

বিআলো/শিলি