সরকারি দলের হামলার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ করবে বিএনপি

সরকারি দলের হামলার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ করবে বিএনপি

বিআলো ডেস্ক:সারাদেশে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাদের ওপর সরকারি দলের হামলার প্রতিবাদে আগামী ১২ ও ১৪ মে দুইদিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি।

মঙ্গলবার (১০ মে) রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথ সভা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গত কয়েকদিন ধরে আপনারা লক্ষ্য করেছেন সারাদেশে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ থেকে শুরু করে অন্যান্য বিরোধী দলের নেতাদের ওপর আক্রমণ চালিয়ে সারাদেশে একটা সন্ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে। কুমিল্লার দাউদকান্দিতে স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ওপর হামলা ও তার বাসভবনে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের আক্রমণ এবং পরবর্তিতে বিএনপির নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

'একই সঙ্গে কুমিল্লার চান্দিনায় এলডিপি মহাসচিব সাবেক মন্ত্রী রেদোয়ান আহমেদের গাড়িতে হামলা ও তাকে গ্রেফতার, ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক জয়নাল আবেদীনের ওপর হামলা, পটুয়াখালীর সদস্য সচিব শিদাংশু সরকারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণভাবে ধবংস করে দেয়াসহ সাতক্ষীরা, নারায়নগঞ্জ, পটুয়াখালীর নেতাদের ওপর হামলা করেছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। আমরা এসব ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এসব সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আগামী ১২ মে ঢাকা মহানগরে এবং ১৪ মে সারাদেশে জেলা পর্যায় বিক্ষোভ সমাবেশের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।'

এরআগে নয়াপল্টনে বিএনপি মহাসচিবের সভাপতিত্বে যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীসহ দলটির অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের সভাপতি এবং সম্পাদকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

বিআলো/শিলি